অ্যাম্বুলেন্স দেয়নি হাসপাতাল, মেয়ের লাশ নিলেন কোলে করে

ভারতের তেলেঙ্গানার করিমনগর জেলায় এক হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটেছে। রাজ্যের একটি হাসপাতালে সম্পত কুমার নামে এক হতদরিদ্র ব্যক্তির সাত বছরের মেয়ে মারা যায়। বাবা মেয়ের লাশ বাড়ি নিয়ে যাওয়র জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে একটি অ্যাম্বুলেন্স চেয়েছিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অ্যাম্বুলেন্স দিতে অস্বীকৃত জানানোর পর মেয়েকে কোলে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্য রওনা দেয় হতদরিদ্র বাবা।
সম্পত কুমার মেয়ের লাশ কোলে নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে হাসপাতাল ত্যাগ করার সময়ও কর্তৃপক্ষ উদার হয়নি।
হাসপাতাল থেকে সম্পতের গ্রামের দূরত্ব ৫০ কিলোমিটার। কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। রাস্তায় এক অটো ড্রাইভার সম্পতের কাছে বিস্তারিত বিবরণ শোনেন। পরে সে নিজের অটোতে মৃত মেয়েসহ বাবাকে বাড়িতে পৌছে দেন।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের এ নির্মমতার খবর সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশিত হলে রাজ্যে তুমুল সমালোচনা হচ্ছে। রাজ্যের জনগণ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের শাস্তি দাবি করেছে।
তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তাদের দাবি সম্পত মেয়েকে নিয়ে গ্রামে যাওয়ার জন্য তাড়াহুড়া করে। এ কারণে নিজ উদ্যোগেই মেয়েকে কোলে নিয়ে গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

Facebook Comments