ছাত্রদলের শীর্ষ দুই পদে লড়বেন ১১০ জন

নানা ঝক্কি-ঝামেলা শেষে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করতে মনোনয়ন বিতরণ শেষ করলো বিএনপি। কাউন্সিল করতে গঠন করা কমিটির সদস্যরা শনিবার ও রবিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেন। উৎসাহ, উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আগ্রহী ছাত্রদল নেতারা মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। দুই পদে ১১০টি ফরম বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে।
ছাত্রদলের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী জানিয়েছেন ছাত্রদলের নতুন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক এমন ১১০জন নেতা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। ছাত্রদলের মনোনয়ন ফরমের দাম ছিল মাত্র ১০০ টাকা।
পদ প্রত্যাশীদের কেউ ছোট ছোট মিছিল নিয়ে, কেউ আবার বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত করে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।
পুনঃ তফসিল অনুযায়ী ১৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোট গ্রহণ হবে। কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে সংগঠনটির আগামী দিনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হবে। মনোনয়ন ফরম জমা দেওয়া যাবে ১৯ ও ২০ আগস্ট পর্যন্ত। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৩১ আগস্ট।
২২ থেকে ২৬ আগস্ট মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে আগামী ২ সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। এরপর ১২ সেপ্টেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত প্রার্থীরা ভোটের জন্য প্রচার চালাতে পারবেন।
শেষ দিনে সভাপতি পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক বৃত্তি ও ছাত্র কল্যাণবিষয়ক সম্পাদক কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, সহ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল আলম ফকির লিঙ্কন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আল মেহেদী তালুকদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাজিদ হাসান বাবু প্রমুখ।
অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নাদিয়া পাঠান পাপন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আমিনুর রহমান আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু তাহের, ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদলের ভিপি প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক তানজিল হাসান, শাহ নেওয়াজ, ইকবাল হোসেন শ্যামল, রিজভী আহমেদ ও রিয়াদ মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, সহ- বেসরকারি বিষয়ক সম্পাদক ডালিয়া রহমান প্রমুখ।
মনোনয়ন বিক্রির প্রথম দিনে সভাপতি পদের সংগ্রহ করেন ছাত্রদলের সাবেক তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মামুন খান, সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল আলম টিটু, ছাত্রদল নেতা আলিমুল হাকিম মুন্সি, বাংলা কলেজ ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি খলিলুর রহমান ও আবু জাহান হিমেল।
সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন ছাত্রদলের সাবেক স্কুল বিষয়ক সহ-সম্পাদক আলাউদ্দিন খান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি ও ঢাকা কলেজ ছাত্রদল নেতা এম এ কাইয়ুম।
ছাত্রদলের কাউন্সিল নিয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদু বলেন, এই সম্মেলনের মধ্য দিয়েই এদেশে স্বৈরাচার পতনের যে দৃষ্টান্ত ছাত্রদল অতীতে রেখেছে সেই উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আগামী দিনেও পতপত করে বাংলার আকাশে উড়াবে।

Facebook Comments