আগে খালেদা জিয়াকে বাঁচানো দরকার: জয়নুল আবেদীন

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে ফের হাইকোর্টে আবেদন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চে জামিন আবেদন করা হয়।

জামিন আবেদনে খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী হিসেবে খন্দকার মাহবুব হোসেন, মওদুদ আহমদ, জয়নুল আবেদীন, কায়সার কামাল, সগির হোসেন লিওনের নাম রয়েছে।

যে গ্রাউন্ডে জামিন চাইবেন খালেদা জিয়ার আউনজীবীরা, সে সম্পর্কে জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘আমাদের একটাই কারণ (গ্রাউন্ড), সেটা হলো মানবিক। বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ, তাকে বাঁচানো দরকার। আমাদের দেশের আদালত তো মানুষের জন্য। আমরা আবেদনে লিখেছি, ওনাকে জামিন দিলে চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে পাঠাবো।’

খালেদা জিয়ার অন্যতম এই আইনজীবী বলেন, ‘আপনারা জানেন যে, প্রায় দুই মাস ধরে অপেক্ষা করেছি, আপিল বিভাগ অ্যাডভান্স ট্রিটমেন্টের (অধিকতর চিকিৎসা) যে আদেশটা দিয়েছেন। সরকার তা কতটা তামিল (বাস্তবায়ন) করে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বেগম খালেদা জিয়ার আত্মীয়-স্বজনের মাধ্যমে জানতে পারলাম- তাঁর (খালেদা জিয়া) আগের যে অবস্থা ছিল বর্তমানে তার চেয়ে অবনতি হয়েছে। বিশেষ করে তার ডায়াবেটিস এখন ১৪, ১৫ নিচের নামছে না। সেই কারণে তার ডান হাত ব্যাকা ছিল এখন বাম হাত ব্যাকা হয়ে যাচ্ছে। এখন তিনি বসতেও পারেন না, খেতেও পারেন না, এই অবস্থা দেখছি। সুতরাং এজন্য আমরা সিনিয়র কাউন্সিল এবং আমাদের নীতিনির্ধারণী ফোরাম এক সাথে বসে সিদ্ধান্ত নিয়েছি বিষয়টি নিয়ে আবার আমরা কোর্টের কাছে যাব।’

আজকে (১৮ ফেব্রুয়ারি) পিটিশনটা রেডি করে এফিডেভিট (সংশ্লিষ্ট কোর্টে আবেদন) করেছি। কালকে আদালতের কাছে যাব, জামিন চাওয়া হবে বরেও জানান জয়নুল আবেদীন।

Facebook Comments